সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:২১ পূর্বাহ্ন

‘দাবি মোদের একটাই, বিশ্বকাপে রিয়াদকে চাই’

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২
20220916195716_ogImage_24

বুড়ো’দের ছাঁটাই করে তরুণ দল তৈরির পরিকল্পনায় বলি হয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এখনও পারফর্ম করতে না পারা নাজমুল হোসেন শান্তকে নিলেও অভিজ্ঞ মাহমুদউল্লাহের ঠাঁই হয়েনি আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্কোয়াডে।

টি-টোয়েন্টিতে ২ হাজারের বেশি রান করা মাহমুদউল্লাহর বিশ্বকাপে ঠাঁই না হওয়াতে হতাশ ও ক্ষুব্ধ তার ভক্ত-অনুরাগীরা।

বিশ্বকাপ দলে মাহমুদউল্লাহকে ফেরাতে শুক্রবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের এক নম্বর গেটের সামনে মানববন্ধন করেছেন তাদের কয়েকজন। তাদের স্লোগান, ‘দাবি মোদের একটাই, বিশ্বকাপে রিয়াদকে চাই’।

ব্যানার- ফেস্টুন নিয়ে প্রায় আধঘণ্টা সেখানে অবস্থান করেন তারা।

মানববন্ধনে বিশ্বকাপ দলে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে অন্তর্ভূক্তির দাবিসহ নানা স্লোগান দিতে দেখা যায় তাদের।

এ বিষয়ে মানববন্ধনে অংশ নেওয়া এক মাহমুদউল্লাহভক্ত বলেন, ‘আমাদের দাবি একটাই। এই বিশ্বকাপে রিয়াদ ভাইকে সুযোগ দেওয়া হোক। উনি অবশ্যই ভালো করবেন। আমাদের বিশ্বাস উনি একজন ভালো অলরাউন্ডার। ’

আরেকজন বলেন, ‘রিয়াদ ভাইয়ের ভক্ত হলেও এটা স্বীকার করছি যে, টি-টোয়েন্টিতে যেভাবে ব্যাটিং করা উচিত সেভাবে পারছেন না তিনি। কিন্তু আমাদের প্রশ্ন কে পারছেন? অন্যরা তো রিয়াদ ভাইয়ের মতো স্কোরও করতে পারছেন না।  আমরা রিয়াদ ভাইয়ের চেয়ে ভালো অপশন দেখছি না।’

টি-টোয়েন্টি দলে আর কেউ ভালো করছে না দেখেই মাহমুদউল্লাহকে ফেরানোর বিষয়টি সামনে আনেন এক ভক্ত।

তিনি বলেন, ‘জিম্বাবুয়ে সিরিজে বিশ্রামের কথা বলে উনাকে বাদ দেওয়া হয়েছিল। এরপর যখন দল খারাপ করেছে, তখন উনাকে ফেরানো হয়েছে, উনি একটি ভালো ইনিংস খেলেছেন।  আমি মনে করি রিয়াদ ভাইয়ের ভেতরে যে ব্যাটিং সক্ষমতা আছে, আর উনার যে অভিজ্ঞতা সেটা দিয়ে অবশ্যই ফিরে আসতে পারবে। ’

একজন ক্রিকেটপ্রেমী বলেন, বিশ্বকাপে দলে যেহেতু তামিম, মুশফিক নেই। অন্তত অভিজ্ঞ মাহমুদউল্লাহকে রাখা যেত। টি-টোয়েন্টিতে তার ক্যাপ্টেন্সির অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাতে পারতেন সাকিব। দেশের মাটিতে রিয়াদের নেতৃত্বে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডকে হারানোর সিরিজ আমরা ভুলে যাইনি।

উল্লেখ্য, বিশ্বকাপ দলে রাখা হবে না – তা আগেই ইঙ্গিত পেয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। অবসরের বিষয়ে বোর্ডের পক্ষ থেকে একটি প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল মাহমুদউল্লাহকে। কিন্তু সেই প্রস্তাবে রাজি হননি তিনি।

ক্রিকবাজের এক প্রতিবেদন এমনটাই জানিয়েছে।

সেখানে বলা হয়েছে, মাহমুদউল্লাহকে সসম্মানে বিদায় জানাতে চেয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। জাতীয় দলে তার অবদানের প্রতি সম্মান রেখে নাকি নিউজিল্যান্ডের মাটিতে আসন্ন ত্রিদেশীয় সিরিজে বিদায়ী ম্যাচের প্রস্তাব দিয়েছিল বিসিবি। কিন্তু মাহমুদউল্লাহ তাতে রাজি হননি।

মাহমুদউল্লাহ জানিয়েছেন, আরও ২ বছর খেলতে চান তিনি। বিশ্বকাপে ঠাঁই না হলেও বিপিএলে পারফর্ম করে ফের দলে ফিরবেন বলে আশাবাদী দ্য সাইলেন্ট কিলার।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর