শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৪:৩০ অপরাহ্ন

জাতীয় নির্বাচনে সেনাবাহিনী সহায়তা নেওয়ার সিদ্ধান্ত

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৫ আগস্ট, ২০২২
image-49156-1526415978

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনাবাহিনীর সহযোগিতা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আজ বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য জানান নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর।

মো. আলমগীর বলেন, ‘আগামী সাধারণ নির্বাচনে সেনাবাহিনীর সহযোগিতা নেবো সেটা আমাদের সিদ্ধান্ত আছে। সরকারকে প্রস্তাব দেব সেনাবাহিনীর সহায়তা দেওয়ার জন্য।’

নির্বাচনে সেনাবাহিনী ব্যবহার প্রসঙ্গে জানতে চাইলে এই কমিশনার বলেন, ‘সেনাবাহিনীর সবাইকে মাঠে নামানো সম্ভব না। কারণ তাদের তো নিজস্ব কাজ আছে। জাতীয় নির্বাচনের সময় তারা আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সাহায্যকারী হিসেবে থাকেন। টহল দিতে থাকেন। যেখানে যখন ডাক পড়ে সেখানে যান। নির্দিষ্ট কেন্দ্রে থেকে পুলিশ আনসার যেভাবে করেন সেভাবে তো করা সম্ভব না।’

সেনাবাহিনীর কি ধরনের সহযোগিতা ইসি নেবে এমন প্রশ্নের জবাবে আলমগীর বলেন, ‘আইনশৃঙ্খলার বাইরে তাদের দেখার সুযোগ নাই। ইভিএমে যেখানে ভোট হয় সেখানে তাদের কিছু এক্সপার্ট লোক আছে যেহেতু বিএমটিএফ থেকে ইভিএম কিনেছি। কোনো সমস্যা হলে সেটা দেখার জন্য তারা থাকবেন। আইন-শৃঙ্খলার দায়িত্বে নয়। তারা থাকবেন টেকনিক্যাল সহকারি হিসেবে। এ ছাড়া অন্য কোনো ভূমিকা রাখার সুযোগ নেই।’

আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার ক্ষেত্রে সিআরপিসি ও নির্বাচন কমিশনের আইনের প্রসঙ্গ টেনে আলমগীর বলেন, ‘যেহেতু সরকারে যে কোনো সংস্থার আমরা সহযোগিতা চাইতে পারি। সংবিধান অনুযায়ী বলা আছে, কাজেই সেনাবাহিনীর যদি সহায়তা চাই তারা সেই সহায়তা দিতে বাধ্য।’

রোডম্যাপের খসড়া চূড়ান্ত
নির্বাচনী রোডম্যাপ সম্পর্কে এই নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘রোডম্যাপের খসড়া চূড়ান্ত হয়েছে। বর্তমানে এটা কমিশনের কাছে আছে। এ মাসের শেষে অথবা সামনের মাসের শুরুতে রোডম্যাপের বিষয় চূড়ান্ত হবে। রোডম্যাপে থাকবে সুষ্ঠু নির্বাচন করতে গেলে কী কী কাজ করা প্রয়োজন সেগুলো কীভাবে বাস্তবায়ন করব। কি চ্যালেঞ্জ থাকবে। কীভাবে মোকাবিলা করব।’

৫০ আসনে ইভিএম হতে পারে
সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মো. আলমগীর জানান, আগামী নির্বাচনে সর্বনিম্ন ৫০টি আসেন ইভিএম ব্যবহার হতে পারে। তিনি বলেন, ‘আমাদের সক্ষমতা আছে ৭০ থেকে ৮০ টা। পরিস্থিতি যদি এমন হয় আমরা ১৫০ আসনেই করতে পারব। তাহলে ১৫০ আসনেই করব। যদি মেশিন যদি আরও নষ্ট হয়ে যায় তাহলে ৫০টায় হতে পারে।’

জিবাংলা টেলিভিশনের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন।

আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে ফলো করুন ফেসবুক গুগল প্লে স্টোর থেকে Gbangla Tv অ্যাপস ডাউনলোড করে উপভোগ করুন বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর