শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৫:৫৯ অপরাহ্ন

হামাসের ৬০ সদস্যকে আটকে রেখে নির্যাতন চালাচ্ছে সৌদি আরব

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৪ আগস্ট, ২০২২
4c0se638a64038224qm_800C450

ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের শীর্ষস্থানীয় নেতা খালেদ মাশয়াল বলেছেন, সৌদি আরব হামাসের অন্তত ৬০ জন সদস্যকে আটকে রেখে তাদের ওপর নির্যাতন চালাচ্ছে।

তিনি আজ (রোববার) আরও বলেছেন, হামাস এ পর্যন্ত কোনো দেশের বিরুদ্ধে কটু কথা বলেনি এবং অন্য কোনো দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়েও কখনো হস্তক্ষেপ করেনি। তিনি অবিলম্বে হামাসের সদস্যদের মুক্তি দিতে সৌদি আরবের প্রতি আহ্বান জানান।

সৌদি আরবে আটক হামাস সদস্যদের একজন হলেন ড. মুহাম্মাদ আল-খুদারি। ২০১৯ সালের এপ্রিল মাসে যখন ড. আল-খুদারি ও তার ছেলেকে সৌদি কর্তৃপক্ষ আটক করে তার আগ মুহূর্তে হামাসের এ নেতা মূত্রথলির অপারেশন করান এবং প্রোস্টেট ক্যান্সারের চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। তাকে উপযুক্ত চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ রয়েছে।

খালেদ মাশয়াল বলেন, হামাস একটি ইসলামি ও ফিলিস্তিনি সংগঠন এবং মুক্তি ও স্বাধীনতার লক্ষ্য বাস্তবায়নে এই সংগঠন কাজ করে যাচ্ছে। কোনো আরব দেশের সঙ্গে হামাস বিরোধে জড়ায়নি বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

হামাসের বৈদেশিক শাখার প্রধান খালেদ মাশয়াল এই সংগঠনের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদের অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, পবিত্র ইসলাম ধর্মে নিজের ন্যায্য অধিকার রক্ষার ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। শুধু ইসলাম ধর্মে নয়, সব ধর্ম ও আন্তর্জাতিক আইনেও স্বাধিকার আন্দোলনকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। এ কারণে হামাসের প্রতিরোধ আন্দোলন একটি ন্যায্য আন্দোলন।

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সঙ্গে হামাসের সম্পর্কের বিষয়ে তিনি বলেন, ইরানের সঙ্গে হামাসের সম্পর্ক কখনোই ছিন্ন হয়নি এবং এখনও এই সম্পর্ক অটল রয়েছে।#

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর