শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৩০ অপরাহ্ন

মধ্যরাতে জ্বালানির দাম বাড়িয়ে সরকার মানুষের সর্বনাশ করেছে : ফখরুল

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৭ আগস্ট, ২০২২
bnp

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, মধ্যরাতে জ্বালানির দাম বাড়িয়ে সরকার দেশের মানুষের সর্বনাশ করে দিয়েছে। এই দেশের মানুষ আর এভাবে দেশ চালাতে দেবে না।

আজ (রোববার) দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে আয়োজিত এক সমাবেশে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব কথা বলেন। ভোলায় পুলিশের গুলিতে ছাত্রদলের জেলা সভাপতি নুরে আলম ও স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা আবদুর রহিমের মৃত্যু এবং জ্বালানি তেল ও সারের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে এই বিক্ষোভ সমাবেশ করে জাতীয়তাবাদী কৃষক দল।

সমাবেশে মির্জা ফখরুল বলেন, জ্বালানির দাম বাড়ার কারণে প্রতিটি পণ্যের দাম বাড়বে। চালের দাম, তেলের দাম, সারের দাম, যাতায়াত খরচ বাড়বে। সবকিছু বাড়বে। অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। অর্থনীতি আরও খারাপ হবে।

আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম যখন কমছে, তখন দেশে জ্বালানির দাম বাড়ানোর কঠোর সমালোচনা করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আন্তর্জাতিক বাজারে যখন তেলের দাম কমে, তখন তারাও কমায়। আমাদের দেশে আন্তর্জাতিক বাজারে যখন তেলের দাম কমে তখন এখানে দাম বাড়ানো হয়। কেন? তারা যে লুটপাট করে, চুরি করে, দুর্নীতি করে সেই টাকাকে হালাল করার জন্য জনগণের পকেট থেকে কেড়ে নিয়ে যায়।’

‘জনগণকে বিভ্রান্ত করতে সরকার মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে’ উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার যেসব তথ্য দিচ্ছে এর একটা তথ্যও সঠিক নয়। সব তথ্য হচ্ছে জনগণকে বিভ্রান্ত করার জন্য।

শাহবাগে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি

এদিকে, জ্বালানি তেলের বর্ধিত দাম প্রত্যাহারের দাবিতে রাজধানীর শাহবাগে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেছেন নাগরিক সমাজ। গতকাল শনিবার সন্ধ্যা থেকে রাতভর তাঁরা জাদুঘরের সামনে অবস্থান করেছেন। ‘বিক্ষুব্ধ ছাত্র-জনতা’ ব্যানারে সমবেত এই আন্দোলনকারীরা দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত অবস্থান চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে গতকাল ঢাকার বিভিন্ন স্থানে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করেছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সংগঠন। বর্ধিত দাম প্রত্যাহার না করলে হরতালের মতো কর্মসূচি দেওয়ারও হুমকি দিয়েছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)।

বিভিন্ন জায়গায় প্রতিবাদ কর্মসূচির মধ্যে গতকাল সন্ধ্যায় শাহবাগ মোড় অবরোধ করেন একদল বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী। পৌনে এক ঘণ্টা রাস্তায় অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করার পর সাতটার দিকে তাঁরা সরে যান। পরে বিক্ষোভ মিছিল করে শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে অবস্থান নেন ওই শিক্ষার্থীরা। এরপর গণ–অবস্থানে যুক্ত হন বিভিন্ন ছাত্র, শ্রমিক সংগঠন ও রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীরা।

আজ (রোববার) বিকেলেও শাহবাগে তাঁদের অবস্থান করতে দেখা গেছে। আন্দোলনকারীরা জানিয়েছেন, জ্বালানি তেলের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত গণ–অবস্থান কর্মসূচি চলবে।

জিবাংলা টেলিভিশনের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন।

আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে ফলো করুন ফেসবুক গুগল প্লে স্টোর থেকে Gbangla Tv অ্যাপস ডাউনলোড করে উপভোগ করুন বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর