https://channelgbangla.com
মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ০৮:২০ পূর্বাহ্ন

পাঁচ ঘণ্টা পর চললো ট্রেন, সাত সদস্যের তদন্ত কমিটি

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১১ জুন, ২০২২
image-204530-1654951043

ঢাকা থেকে সিলেটগামী আন্তঃনগর পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেনের পাওয়ারকারে অগ্নিকাণ্ডের কারণে ৫ ঘণ্টা বন্ধ ছিলো সিলেট-ঢাকা রেল যোগাযোগ। তবে ক্ষতিগ্রস্ত ট্রেনটি রেললাইন থেকে সরিয়ে নেয়ার পর শনিবার বিকাল ৬টার দিকে সিলেট-ঢাকা রেল যোগাযোগ পুনরায় চালু হয়।

এ ঘটনায় মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবদুল হককে প্রধান করে ৭ সদস্যের তদন্ত কমিটি গটন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মীর নাহীদ আহসান।

এদিকে ‘পাওয়ারকার’ থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে বলে জানিয়েছেন পারাবত ট্রেনের চালক। দুপুর পৌনে ১টায় শমশেরনগর রেলস্টেশ ও মনু রেলস্টেশনে মাঝামাঝি পতনউষারের ডাকবেল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে কেউ হতাহত না হলেও শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত দুটিসহ ৩টি বগি পড়ে ছাই হয়ে যায়। অগ্নিকাণ্ডের সাথে সাথেই সকল যাত্রীদের ট্রেন থেকে নামিয়ে নেয়ায় হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি।

স্থানীয়রা জানান, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা সিলেটগামী পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেন দুপুর সাড়ে ১২টায় শমশেরনগর রেল স্টেশন অতিক্রম করার পর থেকেই জেনারেটরের বগিতে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। এরপর প্রায় ৪ কিলোমিটার অতিক্রম করার পর ট্রেন থামানো হয়। তখন যাত্রীরা দ্রুত ট্রেন থেকে নেমে নিরাপদে আশ্রয় যান। ততক্ষণে কর্তৃপক্ষ আগুন লাগা ৩টি বগি বিচ্ছিন্ন করে দেয়। এ সময় ট্রেনের জেনারেটর বগি ও পার্শ্ববর্তী যাত্রীবাহী বগিতে আগুন জ্বলতে দেখা যায়।

স্থানীয়রা আরও জানান, খবর পেয়ে ঘটনার প্রায় ১ ঘণ্টা পর কমলগঞ্জের ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ও মৌলভীবাজার ফায়ার সার্ভিস স্টেশন থেকে দুটি অগ্নিনির্বাপক দল এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় ট্রেনের ক্ষতিগ্রস্ত ৩টি বগি ছাড়া কোনো ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। এ ঘটনার পর সিলেট-আখাউড়া রেলসেকশন বন্ধ থাকায় বিকাল ৬টা পর্যন্ত সিলেট-ঢাকা রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিলো। ক্ষতিগ্রস্ত বগিগুলো সরিয়ে কুলাউড়া স্টেশনে নিয়ে আসার পর বিকাল ৬টা সিলেট-ঢাকা রুটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

রেলওয়ে পুলিশের এএসআই আবু বক্কর জানান, পাওয়ারকার থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের ধাপে ধাপে ৪টি ইউনিট আগুন লাগার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে। এছাড়াও ফায়ার সার্ভিস ও রেলের কর্মীদের সাথে আগুন নেভানোর কাজে যোগ দিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দা ও জনপ্রতিনিধিরা। পাওয়ারকারের পেছনে দুটি বগিতে আগুন লেগে ভস্মিভূত হয়। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় প্রায় দেড় ঘণ্টা পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে এ ঘটনায় কোনো যাত্রী হতাহত হননি।

আন্তঃনগর পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেনের পরিচালক মো. ইসমাইল বলেন, ট্রেনের পাওয়ার থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। ট্রেন থামানোর পর দেখা যায় চাকার মধ্যে আগুন ও পরে তেলের ট্রাংকিতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

কুলাউড়া স্টেশন মাস্টার মুহিউদ্দিন আহমেদ বিকেল ৬টায় বলেন, এইমাত্র স্বাভাবিক হচ্ছে ট্রেন চলাচল। কুলাউড়া থেকে পারাবত ট্রেনের বাকি অংশ নিয়ে সিলেটের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেবে।

জিবাংলা টেলিভিশনের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন।

আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে ফলো করুন ফেসবুক গুগল প্লে স্টোর থেকে Gbangla Tv অ্যাপস ডাউনলোড করে উপভোগ করুন বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর