https://channelgbangla.com
বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০৪:৩৬ অপরাহ্ন

ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরুর পর বিশ্বজুড়ে তুর্কি ড্রোনের চাহিদা তুঙ্গে

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৩১ মে, ২০২২
564738_161

তুরস্কের বায়রাক্তার টিবি২ ড্রোন দিয়ে ইউক্রেন রাশিয়ার আর্টিলারি ব্যবস্থা এবং সাঁজোয়া যান ধ্বংস করছে। এই ঘটনা দেখে বিশ্বব্যাপী তুর্কি ড্রোনের চাহিদা বেড়ে গেছে বলে দাবি করেছে ড্রোনটির নকশকার।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, তুরস্কের বায়রাক্তার টিবি২ ড্রোননির্মাতা ‘বায়কার ফার্ম’এর প্রতিষ্ঠাতা সেলচুক বায়কার। তিনি বলছেন, প্রযুক্তি কিভাবে আধুনিক যুদ্ধবিদ্যায় বিপ্লব ঘটাচ্ছে তাদের ড্রোন সেটা দেখিয়েছে।

তুরস্কের রাজধানী বাকুতে ড্রোন প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে সেলচুক বায়কার বলেন, যে উদ্দেশ্যে নির্মাণ করা হয়েছে বায়রাক্তার টিবি২ তাই করছে। তাদের ড্রোন সর্বাধুনিক যুদ্ধবিমান ধ্বংসকারী ব্যবস্থা (অ্যান্টি এয়ারক্রাফট সিস্টেম), আর্টিলারি সিস্টেম এবং সাঁজোয়া যান গুড়িয়ে দিচ্ছে।
লেজারচালিত বোমা ফেলে ট্যাংক ধ্বংসের পূর্বে তুরস্কের এই ড্রোনের পাখা ১২ মিটার পর্যন্ত বিস্তার লাভ করতে পারে এবং ২৫ হাজার ফুট পর্যন্ত উঁচুতে উঠতে পারে। এই ড্রোনের সহায়তায় রাশিয়ার সামরিক শ্রেষ্ঠত্বকে চ্যালেঞ্জ করেছে ইউক্রেন।

রয়টার্সের খবর বলছে, বায়রাক্তার ড্রোন ইতোমধ্যে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। যুদ্ধ শুরুর পর জনসম্মুখে অন্তত ৪৫ বার পুতিন এই ড্রোন নিয়ে কথা বলেছেন। তুরস্কের এই ড্রোন সিরিয়া, ইরাক, লিবিয়া এবং আজারবাইজানের নাগার্নো কারাবাখেও ভূমিকা রেখেছে।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেছেন, বিশ্ববাজারে তাদের টিবি২ এবং নতুন আকিঞ্চি ড্রোনের চাহিদা ব্যাপক।

ড্রোননির্মাতা বায়রাক্তার প্রেসিডেন্ট এরদোগানের মেয়েকে বিয়ে করেছেন। তিনি (বায়রাক্তার) জানিয়েছেন, প্রতিবছর তার প্রতিষ্ঠান ২০০টি ড্রোন নির্মাণ করতে সক্ষম।

জিবাংলা টেলিভিশনের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন।

আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে ফলো করুন ফেসবুক গুগল প্লে স্টোর থেকে Gbangla Tv অ্যাপস ডাউনলোড করে উপভোগ করুন বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর