https://channelgbangla.com
রবিবার, ২২ মে ২০২২, ০৩:৩২ পূর্বাহ্ন

সেই ৩ যাত্রী স্ত্রীর আত্মীয় ‘গতকাল পর্যন্ত জানতেন না’ রেলমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৮ মে, ২০২২
Sujon-770x450

বিনা টিকিটে ট্রেনে ভ্রমণ করা তিন যাত্রী যে তার আত্মীয় এটা পরে জানতে পেরেছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। এছাড়া ট্রেনের ভ্রাম্যমাণ টিকিট পরীক্ষক (টিটিই) শফিকুল ইসলামের বরখাস্তের বিষয়ে মন্ত্রী জানান, তার স্ত্রী শুধুমাত্র অভিযোগ করেছেন, কাউকে বরখাস্ত করতে বলেননি।

রোববার (৮ মে) দুপুর ১২টায় রেল ভবনে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

রেলমন্ত্রী জানান, গতকাল পর্যন্ত তিনি জানতেন না যে অভিযোগকারীরা তার স্ত্রীর আত্মীয়। পরে তিনি জানতে পেরেছেন। তবে মন্ত্রীর স্ত্রী শুধুমাত্র অভিযোগ করেছেন, কাউকে সাসপেনশন করতে বলেননি।

এসময় তিনি টিটিই শফিকুল ইসলামের বরখাস্তের আদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানান।

রেলমন্ত্রী বলেন, টিটিই শফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়ার পর পরই বরখাস্ত করতে হবে, এমন বিধান নেই। কেউ অভিযোগ করলে আগে তদন্ত হবে। বরখাস্তের ঘটনায় পাকশীর বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (ডিসিও) নাসির উদ্দিনকে শোকজ করা হবে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। কমিটির মাধ্যমে পুরো ঘটনাটা বের হয়ে আসবে।

এদিকে টিটিই’র বরখাস্ত করাকে ন্যক্কারজনক হিসেবে উল্লেখ করে রেলমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) ও যাত্রী কল্যাণ সমিতিসহ বিভিন্ন সংগঠন।

এ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, টিআইবি দ্রুত সময়ে একটি বিবৃতি দিয়েছে। এখানে মন্ত্রীর কোনো সংশ্লিষ্টতা আছে কিনা তা দেখার আগেই তারা এটা করেছে।

রেলের একাধিক সূত্রে জানা গেছে, ঢাকাগামী আন্তঃনগর সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ঈশ্বরদী রেল জংশন থেকে তিন যাত্রী বিনা টিকিটে এসি কেবিনের সিট দখল করে বসেন। এসময় ট্রেনে কর্তব্যরত টিটিই শফিকুল ইসলাম তাদের টিকিট দেখতে চাইলে তারা রেলমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয় দেন। টিটিই বিষয়টি নিয়ে পাকশী বিভাগীয় রেলের সহকারী বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (এসিও) মো. নুরুল আলমের সঙ্গে পরামর্শ করেন। তিনি সর্বনিম্ন ভাড়া নিয়ে টিকিট কাটার পরামর্শ দেন।

পরামর্শ অনুযায়ী টিটিই শফিকুল ইসলাম ওই তিন যাত্রীকে এসি টিকিটের পরিবর্তে মোট এক হাজার ৫০ টাকা নিয়ে জরিমানাসহ সুলভ শ্রেণির নন-এসি কোচে সাধারণ আসনের টিকিট করে দেন। এ সময় ট্রেনে কর্তব্যরত অ্যাটেনডেন্টসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পাকশী বিভাগীয় রেল সূত্র জানায়, ওই তিন যাত্রী তাৎক্ষণিকভাবে ট্রেনে লিখিত কোনো অভিযোগ করেননি। তবে ঢাকায় পৌঁছে তাদের একজন টিটিই শফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে ‘অসদাচরণের’ লিখিত অভিযোগ করেন। সেই অভিযোগ পেয়ে পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ের বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (ডিসিও) নাসির উদ্দিন বৃহস্পতিবার রাতেই শফিকুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্তের আদেশ দেন।

বিষয়টি নিয়ে দেশজুড়ে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হলে শনিবার (৭ মে) গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন।

তিনি তখন বলেছিলেন, বিনা টিকিটে ট্রেনে ভ্রমণ করা যাত্রীরা আমার আত্মীয় নয়, তাদের সঙ্গে আমার কোনো সম্পর্ক নেই।

এদিকে টিটিইয়ের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দেওয়া মো. ইমরুল কায়েস রেলমন্ত্রীর স্ত্রী শাম্মী আক্তারের মামাতো বোন ইয়াসমিন আক্তার নিপার ছেলে। তারা ঈশ্বরদীর নূর মহল্লায় বসবাস করেন।

ইমরুল কায়েস নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাস করেছেন। বর্তমানে তিনি একটি বহুজাতিক কোম্পানিতে কর্মরত। আর তার ট্রেনযাত্রার সঙ্গী হাসান ও ওমর রেলমন্ত্রীর স্ত্রী শাম্মীর মামাতো ভাই।

জিবাংলা টেলিভিশনের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন।

আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে ফলো করুন ফেসবুক গুগল প্লে স্টোর থেকে Gbangla Tv অ্যাপস ডাউনলোড করে উপভোগ করুন বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর