January 20, 2022, 5:49 pm

দিনে শ্রমিক, রাতে ভয়ংকর ডাকাত তারা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ২১, ২০২১
  • 56 বার পঠিত
নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ হতে ডাকাত দলের মূলহোতাসহ ১০ সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র্যাব-১। মঙ্গলবার(২১ ডিসেম্বর)দুপুরে কাওরান বাজার মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে র্যাব-১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আব্দুল্লাহ আল মোমেন পিএসসি এ তথ্য জানান। মোমেন জানান, রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় একটি সংঘবদ্ধ আন্তঃজেলা ডাকাত দল সক্রিয় রয়েছে বলে জানা যায়।
এই চক্রের সদস্যরা দিনে বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত থাকলেও সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসলে ভয়ংকর হয়ে উঠে। তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে র্যাব-১ ছায়া তদন্ত শুরু করে।র্যাব-১ এর গোয়েন্দা দল জানতে পারে ২১ ডিসেম্বর নারায়নগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানার কাঞ্চনব্রীজের পশ্চিমপাশে একটি মাইক্রোবাসে সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের কতিপয় সদস্য দেশী ও বিদেশী অস্ত্রশস্ত্রসহ স্বর্ণের দোকান/শিল্পকারখানায় ডাকাতির উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে।
সংবাদের ভিত্তিতে আভিযানিক দলটি অভিযান পরিচালনা করে সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সক্রিয় এই সদস্যদের গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃতরা হলেন মো. হিচু মিয়া (৪০), মো. ফরহাদ আলী (৫৮), মো. লিটন শেখ (৩৮), বিপন মৃধা জামাই রিপন (২৯), স্বপন মিয়া (২৭), মো. জাকির ব্যাপারী (২৯), জলিল খান (৪০), শ্রী লক্ষণ চন্দ্ৰ দাস (২৬), শ্রী অজিত চন্দ্ৰ সূত্রধর (২৭) এবং মো. ইখতিয়ার হোসেন (৪৭)কে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ২টি বিদেশী পিস্তল, ১টি শর্টগান, ১টি ওয়ান শুটারগান, ১টি পাইপগান, ২টি ম্যাগাজিন, ৫ রাউন্ড গুলি, ২ রাউন্ড কার্তুজ, ৩টি ছুরা, ১টি লোহার কাঁচি সাবল, ২টি হাতুড়ি, ১টি ফ্রেমসহ হ্যাকস’ ব্লেড, ২টি ছেনি, ১০টি মোবাইল ফোন ও নগদ-৩১ হাজার২০০/টাকা উদ্ধার করা হয় বলে জানান তিনি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, তারা একটি আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য।
তারা একে অপরের যোগসাজশে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় ইতোপূর্বে ১১টি ডাকাতি সংগঠিত করেছে মর্মে স্বীকার করে বলে জানায় র্যাব। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে জানান তিনি।্যাব-১। মঙ্গলবার(২১ ডিসেম্বর)দুপুরে কাওরান বাজার মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে র্যাব-১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আব্দুল্লাহ আল মোমেন পিএসসি এ তথ্য জানান। মোমেন জানান, রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় একটি সংঘবদ্ধ আন্তঃজেলা ডাকাত দল সক্রিয় রয়েছে বলে জানা যায়। এই চক্রের সদস্যরা দিনে বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত থাকলেও সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসলে ভয়ংকর হয়ে উঠে। তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে র্যাব-১ ছায়া তদন্ত শুরু করে।
্যাব-১ এর গোয়েন্দা দল জানতে পারে ২১ ডিসেম্বর নারায়নগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানার কাঞ্চনব্রীজের পশ্চিমপাশে একটি মাইক্রোবাসে সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের কতিপয় সদস্য দেশী ও বিদেশী অস্ত্রশস্ত্রসহ স্বর্ণের দোকান/শিল্পকারখানায় ডাকাতির উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। সংবাদের ভিত্তিতে আভিযানিক দলটি অভিযান পরিচালনা করে সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সক্রিয় এই সদস্যদের গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃতরা হলেন মো. হিচু মিয়া (৪০), মো. ফরহাদ আলী (৫৮), মো. লিটন শেখ (৩৮), বিপন মৃধা জামাই রিপন (২৯), স্বপন মিয়া (২৭), মো. জাকির ব্যাপারী (২৯), জলিল খান (৪০), শ্রী লক্ষণ চন্দ্ৰ দাস (২৬), শ্রী অজিত চন্দ্ৰ সূত্রধর (২৭) এবং মো. ইখতিয়ার হোসেন (৪৭)কে গ্রেফতার করা হয়।
এ সময় তাদের কাছ থেকে ২টি বিদেশী পিস্তল, ১টি শর্টগান, ১টি ওয়ান শুটারগান, ১টি পাইপগান, ২টি ম্যাগাজিন, ৫ রাউন্ড গুলি, ২ রাউন্ড কার্তুজ, ৩টি ছুরা, ১টি লোহার কাঁচি সাবল, ২টি হাতুড়ি, ১টি ফ্রেমসহ হ্যাকস’ ব্লেড, ২টি ছেনি, ১০টি মোবাইল ফোন ও নগদ-৩১ হাজার২০০/টাকা উদ্ধার করা হয় বলে জানান তিনি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, তারা একটি আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য। তারা একে অপরের যোগসাজশে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় ইতোপূর্বে ১১টি ডাকাতি সংগঠিত করেছে মর্মে স্বীকার করে বলে জানায় র্যাব। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে জানান তিনি।
0Shares

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর